ঢাকা হতে গুয়াংজু যেতে চাচ্ছেন? বাংলাদেশের প্রথম এয়ারলাইন হিসাবে চীনের আকাশে পাখা মেলছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। দেশের অভ্যন্তরীণ প্রায় সকল রুটে গত ৪ বছর ধরে সাফল্যের সাথে বিমান পরিচালনার পর বেশ কয়টি দেশে যাত্রী পরিবহন করে আসছিল ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। এবার সফলতার পাখায় আরো একটি পালক যুক্ত হলো জনপ্রিয় এ বেসরকারী এয়ারলাইন্সটির। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে চীনের গুয়াংজু শহরের উদ্দেশ্যে ইউএস-বাংলার প্রথম ফ্লাইটটি উড়ে যায় রাত দশটায়।

এর আগে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স জানায়, স্বাধীনতা পরবর্তী বিভিন্ন সময়ে চীনের বিভিন্ন বিমানবন্দরে বাংলাদেশী এয়ারলাইনগুলো ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতির জন্য চেষ্টা করলেও এই প্রথম চীনের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (সিভিল এভিয়েশন অথরিটি অব চায়না-সিএএসি) ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সকে ফ্লাাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়। প্রথম পর্যায়ে সপ্তাহের তিন দিন গুয়াংজু তে ফ্লাইট পরিচালনা করবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

সুপরিসর বোয়িং ৭৩৭-৮০০ মডেলের উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। এই বিমানটির আসন সংখ্যা ১৬৪ যার মধ্যে ১৫৬টি আসন ইকোনমি ক্লাসের এবং ৮টি আসন বিজনেস ক্লাসের যাত্রীদের জন্য। বর্তমানে চারটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এবং তিনটি ড্যাশ ৮-৪০০ মডেলের এয়ারক্র্যাফট রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বহরে। এয়ারলাইন্স সূত্রে জানা গেছে এ বছরই আরো ৩টি করে বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এবং ড্যাশ ৮-৪০০ মডেলের এয়ারক্র্যাফট যুক্ত হবে এই সমৃদ্ধ বহর।

চীনগামী ঢাকা-গুয়াংজু-ঢাকা রুটে একমুখী যাত্রার ভাড়া শুরু হচ্ছে ৩০,৪০৮ টাকা হতে আর ফিরতি ফ্লাইটসহ যাতায়াতের ভাড়া শুরু হচ্ছে ৩৯,৪৪২ টাকা হতে।

ঢাকা-গুয়াংজু-ঢাকা রুটের ফ্লাইটসূচি নিচের টেবিলে দেয়া হলো। উল্লেখ্য, এই সূচি ও ভাড়া পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পরিবর্তিত হতে পারে। সুনির্দিষ্ট ভাড়া ও সময়সূচি জানতে আপনার ট্রাভেল এজেন্ট এর সাথে যোগাযোগ রাখতে ভুলবেন না যেন।

RouteFlight No.Departureপৌঁছানোর সময়পরিচালনার দিন
ঢাকা হতে গুয়াংজুবিএস ৩২৫১০ঃ১০ রাত০৩ঃ৫০ সকাল +১মঙ্গলবার, বৃহস্পতিবার, শনিবার
গুয়াংজু হতে ঢাকাবিএস ৩২৬০৫ঃ০০ সকাল০৭ঃ৩০ সন্ধ্যাবুধবার, শুক্রবার, রবিবার

১৭ জুলাই ২০১৪ সালে যাত্রা শুরু করে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে সকল অভ্যন্তরীণ রুট ছাড়াও আন্তর্জাতিক রুট সিঙ্গাপুর, কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, মাস্কাট, দোহা ও কলকাতায় ফ্লাইট পরিচালনা করছে। সপ্তাহে প্রায় ৩০০টির অধিক অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে ইউএস-বাংলা। যাত্রা শুরু করার পর সাড়ে তিন বছরে প্রায় ৩৭ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে, যা বাংলাদেশে বিমান চলাচলের ইতিহাসে একটি রেকর্ড।

ভালো লাগা ছড়িয়ে দিন!
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •